আজ ২৮শে কার্তিক ১৪২৬ বঙ্গাব্দ, ১২ই নভেম্বর ২০১৯ ইং

রাজগঞ্জের মাঠে, শীতের আগাম সবজি চাষে ব্যস্ত কৃষক

উত্তম চক্রবর্তী,মণিরামপুর(যশোর)প্রতিনিধিঃ যশোরের পশ্চিম মণিরামপুর তথা রাজগঞ্জ অঞ্চলে আগাম শীতকালীন সবজি চাষে ব্যস্ত সময় পার করছে কৃষকেরা। সরেজমিনে এমনটায় দেখা গেছে। কৃষকদের সাথে কথা বলে জানাগেছে, একটু বাড়তি আয়ের আশায় ঝুঁকি নিয়েই মাঠে শীতকালীন সবজির আগাম চাষ শুরু করেছেন।

রাজগঞ্জের হাকিমপুর, শাহপুর মাঠে শিম ক্ষেত পরিচর্যায় ব্যস্ত আবুল হোসেন নামের একজন কৃষক বলেন, আগাম চাষের ফসলে ফলন কম হয়। তবে ঠিকঠাক মত দেখা-শুনা (পরিচর্যা) করলেই ফসল বিক্রি করে ভালো লাভ পাওয়া যায়। তবে অন্য ফসল চাষের চেয়ে শীতকালীন আগাম সবজি চাষ লাভ জনক। ওই ক্ষেতে শ্রমিক হিসেবে কর্মরত সোরাব মিয়া, খেজের আলী, রুহুল কুদ্দুস, মশিয়ার রহমান তাদের ভাষ্যমতে শীতকালীন সবজি চাষের জন্য এবছর আবহাওয়া অনুকুলে রয়েছে।

এবছর থেমে থেমে বৃৃষ্টিপাত হওয়ায় কাজ করতেও পারছি ভালো। ঘন কুয়াশা হলে সমস্যা। সেক্ষেত্রে শ্রম দিতে হয় অনেক বেশি। ব্যয়ও তুলনামূলক বেশি হয়। তারপরেও ভাগ্যে থাকলে অল্প জমিতে চাষ করলেও লাভ বেশি হওয়ার সম্ভাবনা থাকে। এ অঞ্চলে আরো কয়েকজন কৃষক আবুল হোসেনের মতো বাড়তি লাভের আশায় এখন শীতকালীন আগাম সবজি চাষে মাঠে নেমেছেন। ব্যস্ত সময় পার করছেন তারাও। দেখাগেছে, কৃষকরা মুলা, শিম, বেগুন, ফুলকপি, বাধাকপি, লালশাক, সবুজশাক, পালংশাক, করলা, লাউ, কাঁচা মরিচ, ঢেঁড়স, গাজর, টমেটোসহ নানা জাতের সবজি চাষ করছেন।

পশ্চিম মণিরামপুর তথা রাজগঞ্জ অঞ্চলের মধ্যে চালুয়াহাটী ও মশ্বিমনগর ইউনিয়নে সবজি চাষ বেশি হয়। এই দুটি ইউনিয়নের কৃষকরা বছরের বারো মাসই বিভিন্ন রকমারি সবজি ফলান।

জানাগেছে, কৃষি সম্প্রসারণ অধিদফতরের ইউনিয়ন ভিত্তিক কর্মীরা নিয়মিত দেখাশুনা করে এবং বিভিন্ন পরামর্শ দেন কৃষকদের। একারণে বেশি সমস্যা হয় না।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

     এই বিভাগের আরও খবর


Your IP: 3.233.217.242

%d bloggers like this: