রবিবার, ১৫ সেপ্টেম্বর ২০১৯, ০১:৩৬ অপরাহ্ন

সর্বশেষ খবর :
ছাত্রলীগের কেন্দ্রীয় কমিটির ভারপ্রাপ্ত সভাপতির দায়িত্ব পেয়েছেন বরিশালের কৃতি সন্তান আল-নাহিয়ান খান জয় ঢাকা-সিলেট মহাসড়ক অবরোধ শ্রমিক-পুলিশ সংঘর্ষে কাঁচপুর রণক্ষেত্র, ফাঁকা গুলি টিয়ারশেল নিক্ষেপ শোভন-রাব্বানীর বিচার দাবিতে মধ্যরাতে ঢাবিতে বিক্ষোভ সরফরাজেই ভরসা রাখল পাকিস্তান মহেশপুরে অবৈধ মালামালসহ ৫ ভারতীয় আটক সারদায় পৌঁছেছেন প্রধানমন্ত্রী জনপ্রিয় অনলাইন পত্রিকা “দৈনিক দেশকন্ঠ ডট কম” এ সংবাদদাতা আবশ্যক আফগানিস্তানের বিপক্ষে সম্ভাব্য বাংলাদেশ একাদশ মহাকাশে সিমেন্ট গুলছে নাসা সাক্ষরতা অর্জন করি, দক্ষ হয়ে জীবন গড়ি: কেন্দ্রীয় মহিলা আ`লীগ নেত্রী রিজিয়া রেজা চৌধুরী বেনাপোল সীমান্তে বিজিবি-বিএসএফ’র পতাকা বৈঠক রাজগঞ্জ ডিগ্রী কলেজে বীর মুক্তিযোদ্ধা মরহুম এস এম লুৎফর রহমানের ৩২তম মৃত্যু বাষির্কী পালিত ধুনটে ২ ইউনিয়নের ৬ গ্রামে বিদ্যুতায়ন বেনাপোল হাইস্কুলে ছাত্র/ছাত্রীদের মাঝে বই বিতরণ যশোরের শার্শা উপজেলায় আখের বাম্পার ফলন, ক্রেতা না থাকায় লোকসানমুখি চাষি
নরসিংদীতে ডিস ব্যবসার বিরোধে যুবককে কুপিয়ে হত্যা

নরসিংদীতে ডিস ব্যবসার বিরোধে যুবককে কুপিয়ে হত্যা

মোঃ রিফাত হাসান রাব্বি, নরসিংদী প্রতিনিধিঃ নরসিংদীতে ডিস ব্যবসার বিরোধ নিয়ে রুহুল আমিন (২২) নামের এক যুবককে কুপিয়ে হত্যার অভিযোগ উঠেছে। বুধবার (১১ সেপ্টেম্বর) বেলা সাড়ে ১১টার দিকে শহরের পূর্ব ব্রাহ্মন্দী মহল্লায় জবা টেক্সটাইলের পাশে এ ঘটনা ঘটেছে। নিহত রুহুল আমিন একই মহল্লার বিল্লাল মিয়ার ছেলে।

পুলিশ ও নিহতের স্বজনেরা জানান, রুহুল আমিন পেশায় একজন রঙ ব্যবসায়ী। সম্প্রতি রুহুল আমিন স্থানীয় ডিস ব্যবসায়ী সারোয়ার হোসেনের কর্মচারী মনির হোসেন এর নিকট এলাকার ডিস ব্যবসার নিয়ন্ত্রণ দাবী করে। এনিয়ে দুজনের মধ্যে হাতাহাতি হয়। এর জের ধরে আজ বুধবার বেলা সাড়ে ১১ টার দিকে সারোয়ার হেসেনের ছেলে তানজিল, কর্মচারী মনির, স্থানীয় ছোটন ও হৃদয় নামের চারজন রুহুল আমিনকে বাড়ি থেকে ডেকে নিয়ে যায়। পরে বাড়ির পাশে জবা টেক্সটাইল সংলগ্ন মাঠে তাকে এলোপাতাড়ি কুপিয়ে গুরুতর আহত করে। ডাক চিৎকারে আশেপাশের লোকজন ও পরিবারের সদস্যরা এগিয়ে আসলে তাঁরা পালিয়ে যায়। পরে রুহুল আমিনকে গুরুতর আহত অবস্থায় নরসিংদী জেলা হাসপাতালে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাঁকে মৃত ঘোষণা করেন।

জেলা হাসপাতালের আবাসিক চিকিৎসক কর্মকর্তা (আরএমও) ডা. এম এন মিজানুর রহমান বলেন, প্রাথমিকভাবে ধারনা করা হচ্ছে রুহুল আমিন অতিরিক্ত রক্তক্ষরণে মারা গেছে। তাঁর বুকে, পিঠে, পাজরেসহ মোট ১০/১২ টি কোপের চিহ্ন পাওয়া গেছে। হাসপাতালে আনার আগেই রুহুল আমিন মারা গেছে।

নিহতের ছোট ভাই আলামিন অভিযোগ করে বলেন, রুহুল আমিন ভাই এলাকায় ডিসের ২/৩ শত সংযোগের দায়িত্ব নিতে চেয়েছিলেন। এ নিয়ে কয়েকদিন আগে তানজিলদের কর্মচারী মনিরের সঙ্গে ভাইয়ের ঝামেলা হয়েছিল। এ ঘটনার জের ধরেই তারা বাড়ি থেকে ডেকে নিয়ে ভাইকে কুপিয়ে হত্যা করেছে। আমরা এ ঘটনার দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি চাই।

নরসিংদী সদর মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) সৈয়দুজ্জামান বলেন, যুবককে কুপিয়ে হত্যার খবর পেয়েছি। কিন্তু কি কারনে হত্যা করা হয়েছে তা এখনো নিশ্চিত নই। মামলা দায়েরের পর বলা যাবে। নিহতের লাশ ময়না তদন্তের জন্যে নরসিংদী সদর হাসপাতাল মর্গে পাঠানো হয়েছে।





©2018 Daily DeshKantho.com All rights reserved এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, অডিও, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি।
Design BY PopularHostBD