October 16, 2019, 12:24 am

প্রথম বারের মত বরিশাল স্টেডিয়ামে শ্রীলংকা-বাংলাদেশ আন্তর্জাতিক ম্যাচ

খোকন হাওলাদার ॥ প্রথমবারের মত শহীদ আব্দুর রব সেরনিয়াবাত বরিশাল স্টেডিয়ামে গড়াচ্ছে দুই দেশের মধ্যকার আন্তর্জাতিক পর্যায়ের টেস্ট ম্যাচ। আগামী ২৬ অক্টোবর থেকে টানা চারদিনের এ ম্যাচে মুখোমুখি হবে বাংলাদেশ বনাম শ্রীলংকা অনূর্ধ্ব-১৯ দল।

প্রথমবারের মত আন্তর্জাতিক এই ম্যাচকে ঘিরে ব্যস্ত সময় কাটাচ্ছেন ক্রীড়াঙ্গনের কর্মকর্তারা। তাছাড়া এই খেলাকে ঘিরে উন্নয়নের ছোয়াও লেগেছে দীর্ঘ দিনের অবহেলিত এই স্টেডিয়ামে। দফায় দফায় স্টেডিয়াম পরিদর্শন করেছেন বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ডের উর্ধ্বতন কর্মকর্তারা।

স্টেডিয়ামটির অভ্যন্তরে দুটি প্যাভিলিয়ন, খেলোয়াড় কক্ষ এবং ড্রেসিং রুমসহ সংশ্লিষ্ট জায়গাগুলো আন্তর্জাতিক মানের করে গড়ে তুলতে চলছে শেষ পর্যায়ের প্রস্তুতি। আন্তর্জাতিক মানের এই টুর্নামেন্টকে ঘিরে প্রায় অর্ধ কোটি টাকা ব্যয়ে উন্নয়ন চলছে বরিশাল স্টেডিয়ামে। বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ড (বিসিবি) এর পরিচালক ও বিভাগীয় ক্রীড়া সংস্থার সদস্য সচিব আলমগীর খান আলো এই তথ্য জানিয়েছেন।

জানাগেছে, বিগত পাকিস্তান আমলে বর্তমান নগরীর বান্দ রোডস্থ চাঁদমারী এলাকায় স্থাপন হয় বরিশাল স্টেডিয়াম। পরবর্তীতে ২০০০ সালের দিকে আধুনিকায়নের ছোয়া লাগে স্টেডিয়ামটিতে। পূর্বের গ্যালারী ভেঙে প্রায় অর্ধ লাখ দর্শক ধারণ ক্ষমতা সম্পন্ন সুবিশাল গ্যালারী, দুটি প্যাভিলিয়ন এবং স্টেডিয়ামটিতে ডে-নাইট ম্যাচ খেলার জন্য স্থাপন করা হয় চারটি ফ্লাট লাইট। এছাড়াও বিভিন্ন উন্নয়নের মাধ্যমে আন্তর্জাতিক মানের স্টেডিয়ামে রূপান্তরিত করা হয় শহীদ আব্দুর রব সেরনিয়াবাত স্টেডিয়ামকে।

তবে মাঝে মধ্যে জাতীয় লীগের দু-একটি খেলা হলেও অনেক কাঠ-কড় পুড়িয়ে আন্দোলনের পরেও আধুনিক ও আন্তর্জাতিক মানের সুবিশাল এই স্টেডিয়ামে আদৌ গড়ায়নি আন্তর্জাতিক মানের কোন ম্যাচ। এমনকি স্থাপনের পর থেকে এ পর্যন্ত এক বারের জন্যও জ¦লেনি ফ্লাট লাইট গুলো। ফলে বিকল হয়ে পড়ে আছে বহু মুল্যমানের ওই ফ্লাট লাইট।

অবশ্য বরিশালবাসির প্রাণের দাবি নিজ ঘরের মাঠে বসে উপভোগ করবেন আন্তর্জাতিক মানের খেলা। দীর্ঘ বছরে হলেও সেই স্বপ্ন পুরন হতে চলেছে। বরিশাল স্টেডিয়ামে গড়াচ্ছে শ্রীলংকা বনাম বাংলাদেশ অনূর্ধ্ব-১৯ দলের চার দিনের টেস্ট ম্যাচ। যা ২৬ অক্টোবর থেকে শুরু হয়ে চলবে ২৯ অক্টোবর পর্যন্ত। খেলা ২৬ অক্টোবর শুরু হলেও দুই দলের টিম বরিশালে আসবে ২৩ অক্টোবর। ম্যাচ শুরুর পূর্বে তিনদিন অনুশীলন করবেন তারা।

বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ডের (বিসিবি) পরিচালক আলমগীর হোসেন আলো বলেন, ‘আন্তর্জাতিক এই টেস্ট ম্যাচে পুরোপুরি সহায়তা করছে আইসিসি। তবে এর উদ্যোক্তা বিসিসি। আমার (আলো) দীর্ঘ প্রচেষ্টায় অনূর্ধ্ব-১৯ দলের ম্যাচটি বরিশাল স্টেডিয়ামে গড়াচ্ছে। অবশ্য তার আগে ৩০ অক্টোবর খুলনা যাবে দল দুটি। সেখানে চার বাংলাদেশ বনাম শ্রীলংকার মধ্যকার চার দিনের টেস্ট ম্যাচ হবে।

তিনি বলেন, বরিশাল স্টেডিয়ামটি আন্তর্জাতিক মানের হলেও অভ্যন্তরিন কিছু সমস্যা রয়েছে। যে দুটি প্যাভিলিয়ন ও খেলোয়াড়দের ড্রেসিং রুম রয়েছে তা উন্নত নয়। এজন্য বিসিবি’র উদ্যোগে বরিশাল স্টেডিয়ামে ১০টি এসি বসানো হচ্ছে। কার্পেটিং করে সাজানো হচ্ছে খেলোয়াড়দের ড্রেসিং রুম। ডাইনিংয়ে দেয়া হচ্ছে উন্নতমানের ৬০টি চেয়ার। খেলোয়াড়রা যাতে আন্তর্জাতিক মানের সকল সুযোগ সুবিধা পায় সেভাবে সাজানো হচ্ছে বরিশাল স্টেডিয়ামকে। তাছাড়া খেলোয়াড়দের থাকার ব্যবস্থা করা হচ্ছে তারকা মানের হোটেল গ্রান্ড পার্কে। এই ম্যাচকে কেন্দ্র করে বরিশাল স্টেডিয়ামে প্রায় অর্ধ কোটি টাকার উন্নয়ন হচ্ছে।

বিসিবি’র এই কর্মকর্তা বলেন, ‘এরই মধ্যে বিসিবি’র সচিব এবং প্রকৌশলীরা বরিশাল স্টেডিয়াম পরিদর্শন করে গেছেন। তারা বিভিন্ন দিক নির্দেশনা দিয়েছেন। তাদের মত করেই স্টেডিয়াম আন্তর্জাতিক মানের করে সাজানো হচ্ছে। তাছাড়া চার দিনের এই টেস্ট ম্যাচ উপভোগ করতে কোন দর্শনী বা টিকেট এর প্রয়োজন হবে না বলেও জানিয়েছেন তিনি।

জানাগেছে, ‘বাংলাদেশের অনূর্ধ্ব-১৯ দলটি চলতি বছর এশিয়া কাপ ক্রিকেট টুর্নামেন্টের ফাইনালে ভারতের সাথে খেলে রানার্সআপ হয়। ওই খেলায় বাংলাদেশের অগ্রগতির কারনেই শ্রীলংকার সাথে দুটি টেস্ট ম্যাচ বরিশাল ও খুলনা স্টেডিয়ামে হওয়ার সুযোগ পায়।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

     এই বিভাগের আরো সংবাদ
%d bloggers like this: