আজ ৪ঠা অগ্রহায়ণ ১৪২৬ বঙ্গাব্দ, ১৮ই নভেম্বর ২০১৯ ইং

মোংলা ও পায়রা সমুদ্রবন্দর ৭ নম্বর বিপদ সংকেত, সুন্দরবনে উপকূলে ঘূর্ণিঝড় ‘বুলবুল’ ৫৬ হাজার স্বেচ্ছাসেবককে প্রস্তুত

বাগেরহাট প্রতিনিধিঃ বঙ্গোপসাগরে অবস্থানরত ঘূর্ণিঝড় ‘বুলবুল’র শক্তি আরো বেড়েছে।মোংলা ও পায়রা সমুদ্রবন্দরকে ৪ নম্বর স্থানীয় হুঁশিয়ারি সংকেতের পরিবর্তে ৭ নম্বর বিপদ সংকেত দেখাতে বলা হয়েছে।আর চট্টগ্রাম ও কক্সবাজারে ৬ নম্বর বিপদ সংকেত দেখাতে বলেছে আবহাওয়া অধিদপ্তর।ঘূর্ণিঝড় বুলবুল-এর প্রভাবে সৃষ্ট বৈরী আবহাওয়ার কারণে সুন্দরবনের দুবলার চরে এবারের ঐতিহ্যবাহী রাসমেলা বন্ধ ঘোষণা করা হয়েছে।

শুক্রবার দুপুরে বাগেরহাট জেলা প্রশাসনের কার্যালয়ে অনুষ্ঠিত জেলা দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা কমিটির সভা শেষে গণমাধ্যমে এ তথ্য জানানো হয়। প্রতিবারের ন্যায় এ বছরের আগামী ১০ নভেম্বর থেকে ১২ নভেম্বর পর্যন্ত তিন দিনব্যাপী রাসমেলা অনুষ্ঠিত হওয়া কথা ছিল। ইতিমধ্যে সুন্দরবনের দুবলারচরে রাসমেলাকে ঘিরে উপকূলীয় অঞ্চলে উৎসবের আমেজ বিরাজ করছে। মেলায় যেতে পুণ্যার্থী ও দর্শনার্থীদের প্রস্তুতিও শুরু করেছিল সবাই। এ মেলায় যাওয়াকে কেন্দ্র করে লঞ্চ, ট্রলার, সাম্পান, জালি বোট, স্পিড বোট ভাড়াসহ বিভিন্ন প্রস্তুতি নেওয়া হয়েছিল। কিন্তু দুবলার চর রাস উৎসব জাতীয় কমিটির পক্ষ থেকে মানুষের নিরাপত্তা বিবেচনায় এ উৎসব বন্ধের সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়। বাগেরহাটে ২৩৪ টি, খুলনায় ৩৩৮ টি, সাতক্ষীরায় ১৩৭টি পটুয়াখালীতে ৪০৩টি ব‌রিশালে ২৩২টি সাইক্লোন শেল্টার প্রস্তুত রয়েছে।

উত্তর বঙ্গোপসাগরে অবস্থানরত সব মাছ ধরার নৌকা ও ট্রলারকে পরবর্তী নির্দেশ না দেয়া পর্যন্ত নিরাপদ আশ্রয়ে থাকতে বলা হয়েছে।

এর আগে শুক্রবার ভোর ৬টায় ঘূর্ণিঝড় কেন্দ্রে বাতাসের একটানা গতিবেগ ছিল ঘণ্টায় ৯০ কিলোমিটার, যা ১১০ কিলোমিটার পর্যন্ত বৃদ্ধি পাচ্ছিল।

শনিবার সন্ধ্যা থেকে মধ্যরাত্রির মধ্যে এটি বাংলাদেশের দক্ষিণ পশ্চিমাঞ্চলে আঘাত হানতে পারে বলে জানিয়েছেন দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা ও ত্রাণ প্রতিমন্ত্রী ডা. মো. এনামুর রহমান। শুক্রবার (৮ নভেম্বর) বিকেলে ঘূর্ণিঝড় বুলবুল নিয়ে সংবাদ সম্মেলনে প্রতিমন্ত্রী জানান, এর প্রভাবে ৫ থেকে ৭ ফুট পর্যন্ত জলোচ্ছ্বাস হতে পারে।

ঘূর্ণিঝড় ‘বুলবুল’ চলাকালীন ও ঘূর্ণিঝড় শেষে উদ্ধারকার্যসহ যেকোনো সহায়তার জন্য প্রস্তুত আছে কোস্ট গার্ড।জরুরি সহায়তার জন্য নিম্নোক্ত ফোন নম্বরগুলোতে যোগাযোগ করতে বলা হয়েছে-

বরিশাল বিভাগ-০১৭৬৬৬৯০৬০৩, খুলনা বিভাগ-০১৭৬৬৬৯০৩৮৩, চট্টগ্রাম বিভাগ-০১৭৬৬৬৯০১৫৩ এবং অতিরিক্ত -০১৭৬৬৬৯০০৩৩।

এদিকে সাতটি জেলা ঘূর্ণিঝড় বুলবুলের অতিঝুঁকিতে আছে। জেলাগুলো হলো- বাগেরহাট,বরগুনা, পটুয়াখালী, পিরোজপুর ও ভোলা খুলনা, সাতক্ষীরা ।

ঘূর্ণিঝড় বুলবুল মোকাবেলায় উপকূলবর্তী সকল জেলা, উপজেলা দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা কমিটি ও প্রায় ৫৬ হাজার স্বেচ্ছাসেবককে প্রস্তুত থাকার নির্দেশ দিয়েছে দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা ও ত্রাণ মন্ত্রণালয়। সরিয়ে নিতে বলা হয়েছে উপকূলবর্তী এলাকার জনগণকে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

     এই বিভাগের আরও খবর


Your IP: 18.204.48.199

%d bloggers like this: