রবিবার, ২৫ অগাস্ট ২০১৯, ০৮:৩৭ অপরাহ্ন

আপডেট :
সারাদেশব্যাপী সাংবাদিক নিয়োগ দিচ্ছে- জনপ্রিয় অনলাইন নিউজ পোর্টাল "দৈনিক দেশকন্ঠ" পত্রিকায় কিছু সংখ্যক সৎ, সাহসী নতুন তরুণ-তরুণীদের অগ্রাধিকার দেয়া হবে। আগ্রহী প্রার্থীরা CV: info.deshkantho@gmail.com পাঠিয়ে যোগাযোগ করুন। মোবাঃ ০১৭৯৩৮৫৫০৬১★★★
শিরোনামঃ
আমাজনের আগুন নেভাতে বিমান ভাড়া করে পানি ঢালছে বলিভিয়া ১০ মিনিটের আবেগ ধুনটে জমি নিয়ে সহিংসতা, আহত ৭ বগুড়ায় ছিনতাই হওয়া গমের ট্রাক রাজশাহী থেকে উদ্ধার কেশবপুরে জন্মাষ্টামী উপলক্ষে শিশুদের গীতা পাঠ ও সংগীত প্রতিযোগিতা এবং পুরস্কার বিতরণ কেশবপুরে ৫শত শিশুর মাঝে গিফটবক্স বিতরণ ফরিদপুরে পৃথক সড়ক দুর্ঘটনায় নিহত-১০, আহত-৩০ প্রবাসী মানেই একজন যোদ্ধা তাঁরা দেশের জন্য যুদ্ধ করে দেশকে তুলেছে একটি উন্নত শিল দেশে গোবিন্দগঞ্জে শ্রী কৃষ্ণের জন্মষ্টমী উপলক্ষে মঙ্গল শোভা যাত্রা নিরাপত্তা কোথায়? দিরাই এডুকেশন ট্রাস্টের উদ্যোগে আলোচনা সভা ও মিলাদ মাহফিল অনুষ্ঠিত জামালপুরে জেলা প্রশাসকের সঙ্গে ডিসি`র অন্তরঙ্গ ভিডিও ফাঁস চাঁদপুরে স্কুলছাত্রীকে তুলে নিয়ে নির্যাতন: ৪ বখাটের বিরুদ্ধে মামলা দায়ের কেশবপুরে জমি সংক্রান্ত বিরোধে সন্ত্রাসী হামলা, ২ গৃহবধূ আহত রোহিঙ্গাদের ফেরত পাঠাতে শক্ত অবস্থানে যাবে বাংলাদেশ
ভারতের স্যাটেলাইট পরীক্ষা ‘ভয়ংকর’ বলল নাসা!

ভারতের স্যাটেলাইট পরীক্ষা ‘ভয়ংকর’ বলল নাসা!

অনলাইন ডেস্কঃ ভারত ক্ষেপণাস্ত্র ছুড়ে কক্ষপথে উপগ্রহ ধ্বংসের যে পরীক্ষা চালিয়েছে, তা আন্তর্জাতিক মহাকাশ স্টেশনের বড় ক্ষতি হতে পারে বলে আশঙ্কা করছে নাসা।খবর সিএনএনের।

 

মার্কিন এ মহাকাশ গবেষণা সংস্থাটির প্রধান জিম ব্রাইডেনস্টাইন ১০ দিন পেরিয়ে যাওয়ার পর ভারতীয় ওই উপগ্রহের ধ্বংসাবশেষের সঙ্গে আইএসএসের সংঘর্ষের শঙ্কা ৪৪ শতাংশ বেড়ে গেছে বলে মন্তব্য করেছেন।

 

‘মিশন শক্তি’র ‘এস্যাট’ ক্ষেপণাস্ত্র পৃথিবীর ৩০০ কিলোমিটার ওপরে থাকা উপগ্রহটিকে ধ্বংস করেছে। আর তার মাত্র ৭০ কিলোমিটার ওপরের (৩৭০ কিলোমিটার) কক্ষপথেই রয়েছে আন্তর্জাতিক মহাকাশ স্টেশন (আইএসএস)।

 

নাসার প্রধান জিম ব্রাইডেনস্টাইন বলেছেন, ‘ভয়ংকর’, ভয়াবহ ঘটনা। ‘এস্যাট’ ক্ষেপণাস্ত্রের আঘাতে পৃথিবীর ৩০০ কিলোমিটার ওপরের কক্ষপথে ভারতীয় উপগ্রহের অন্তত ৪০০টি ধ্বংসাবশেষের সৃষ্টি হয়েছে। যাদের গতিবেগ ওই উপগ্রহটির মতোই।

 

তিনি বলেন, সেগুলো কক্ষপথে প্রদক্ষিণের সময় কোনদিকে ছুটবে বা কার গায়ে গিয়ে ধাক্কা মারবে আর তার ফলে কী হবে, তা কেউই জানে না।

 

ইতিমধ্যেই মার্কিন প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয় জানিয়েছে, ওই ধ্বংসাবশেষগুলোর মধ্যে ২৪টিকে ওপরের দিকে উঠতে দেখা গিয়েছে।

 

নয়াদিল্লি অবশ্য শুরু থেকেই এ ধরনের আশঙ্কাকে অমূলক বলে উড়িয়ে দিয়েছে। তাদের মত অনুযায়ী, পরীক্ষাটি হয়েছে পৃথিবীর নিচের দিককার কক্ষপথে, ভূমি থেকে মাত্র ৩০০ কিলোমিটার উচ্চতায়, ফলে আইএসএস কিংবা অন্য কোনো উপগ্রহের সঙ্গে সংঘর্ষে জড়ায় এমন কোনো ধ্বংসাবশেষই মহাশূন্যে থাকবে না।

 

নাসার আশঙ্কা, আন্তর্জাতিক মহাকাশ স্টেশন যেহেতু রয়েছে পৃথিবীর ৩৭০ কিলোমিটার ওপরের কক্ষপথে, তাই ক্রমশ ওপরের দিকে ওঠা ২৪টি ধ্বংসাবশেষের কোনো একটি বা দুটি যদি ধাক্কা মারে মহাকাশ স্টেশনে, তাহলে স্টেশন তো বটেই, সেই স্টেশনে থাকা মহাকাশচারীদের পক্ষেও তা অত্যন্ত বিপজ্জনক হয়ে উঠবে।

 

নাসার জানিয়েছেন, তাদের মধ্যে যেগুলো বেশ বড়, সেগুলোকেই আগে খোঁজা হচ্ছে। সেগুলোর ব্যাস ১০ সেন্টিমিটারের চেয়েও বড়। এমন ৬০টি খণ্ডের হদিস মিলেছে।

 

ভারতের পরীক্ষার পর মহাশূন্যে শক্তিধর রাষ্ট্রগুলোর অস্ত্র প্রতিযোগিতা বেড়ে যাচ্ছে জানিয়ে উদ্বেগ প্রকাশ করেছে অস্ত্র নিয়ন্ত্রণে কাজ করা বিভিন্ন সংগঠন।

 

উপগ্রহ ধ্বংসের এ প্রযুক্তি ভারতকে যে কোনো সংঘর্ষে শত্রু উপগ্রহগুলোকে ধ্বংস করার সুযোগ করে দেবে। এর ফলে ভারতের সঙ্গে তার আঞ্চলিক প্রতিদ্বন্দ্বী চীনের উত্তেজনা আরও বাড়বে বলেও শঙ্কা বিশ্লেষকদের।

 

মোদির ‘মিশন শক্তির’ সফল পরীক্ষার ঘোষণা ভারতেরবিরোধী দলগুলোকেও ক্ষেপিয়ে তুলেছে। জাতীয় নির্বাচনের আগে এ ঘোষণাকে মোদি ‘রাজনৈতিক চাল’ হিসেবে ব্যবহার করেছেন বলেও অভিযোগ তাদের।

 

চলতি মাসের ১১ তারিখ থেকে দেশটিতে লোকসভা নির্বাচন শুরু হওয়ার কথা রয়েছে।





©2018 Daily DeshKantho.com All rights reserved এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, অডিও, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি।
Design BY PopularHostBD