শনিবার, ২৪ অগাস্ট ২০১৯, ১২:২৭ পূর্বাহ্ন

আপডেট :
সারাদেশব্যাপী সাংবাদিক নিয়োগ দিচ্ছে- জনপ্রিয় অনলাইন নিউজ পোর্টাল "দৈনিক দেশকন্ঠ" পত্রিকায় কিছু সংখ্যক সৎ, সাহসী নতুন তরুণ-তরুণীদের অগ্রাধিকার দেয়া হবে। আগ্রহী প্রার্থীরা CV: info.deshkantho@gmail.com পাঠিয়ে যোগাযোগ করুন। মোবাঃ ০১৭৯৩৮৫৫০৬১★★★
শিরোনামঃ
কেশবপুরে জমি সংক্রান্ত বিরোধে সন্ত্রাসী হামলা, ২ গৃহবধূ আহত রোহিঙ্গাদের ফেরত পাঠাতে শক্ত অবস্থানে যাবে বাংলাদেশ নওগাঁয় আত্রাইয়ে শ্রী কৃঞ্চের জন্মষ্টমী উদযাপন আত্রাইয়ে ট্রেনের ৬৫০ লিটার ডিজেলসহ আটক ৩ ভোলায় ধর্ষণের বিচার করবে বলে বিশ হাজার টাকা ঘুষ নিয়েছেন দুই দালাল বেনাপোল সীমান্তে ফেনসিডিল ও ভারতীয় মালামালসহ আটক-১ কেশবপুর উপজেলা পূজা উদযাপন পরিষদের আয়োজনে জন্মাষ্টামী পালিত বিমানের যাত্রীসেবার মান উন্নত করার নির্দেশ প্রধানমন্ত্রীর বরিশালে ভগবান শ্রীকৃষ্ণের জন্মাষ্টমী পালিত নরসিংদীর মাধবদীতে ব্যবসায়ীদের সাথে নবাগত পুলিশ সুপারের মতবিনিময় সভা শেরপুরে খাস জমিতে অবৈধ স্থাপনা উচ্ছেদ করলেন ইউএনও বিদ্যানন্দকাটি ইউনিয়ন আ.মীলীগের আয়োজনে জাতীয় শোক দিবস পালিত শেরপুরে বাল্যবিয়ে থেকে রক্ষা পেল আদুরী, বরের জেল বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ৪৪ তম মৃত্যুবার্ষিকী উপলক্ষে ইতালির আনকোনা শহরে আলোচনা সভা ও দোয়া মাহফিল ঠাকুরগাঁওয়ে সড়ক দুর্ঘটনায় নিতহ ৩, আহত ২০
ভুল চিকিৎসার জন্য মানিকের মৃত্যু।

ভুল চিকিৎসার জন্য মানিকের মৃত্যু।

কিশোরগঞ্জ প্রতিনিধিঃ কিশোরগঞ্জের হোসেনপুর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে চিকিৎসকের অবহেলায় ডায়রিয়া আক্রান্ত এক রোগীর মৃত্যুর অভিযোগ পাওয়া গেছে। এর জের ধরে রোগীর আত্মীয়স্বজন ও এলাকাবাসী হাসপাতাল ঘেরাও করেন। পরে পুলিশ গিয়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণ করেছে। মঙ্গলবার বেলা ২টার দিকে এ ঘটনা ঘটে। জানা গেছে, উপজেলার সিদলা ইউনিয়নের চৌদার গ্রামের মানিক মিয়া সোমবার ডায়রিয়ায় আক্রান্ত হয়ে হোসেনপুর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি হন। তার অবস্থার অবনতি হলে রোগীর সঙ্গে যাওয়া স্বজনরা ডাক্তারের কাছে ছুটে যান। কিন্তু তখন অটিজম দিবসের অনুষ্ঠান চলছিল হাসপাতালে। তারপরও রোগীর স্বজনরা হাসপাতালের ভারপ্রাপ্ত আবাসিক চিকিৎসা কর্মকর্তা ডা. আবদুল্লাহ আল শামীমের সঙ্গে দেখা করে রোগীর সর্বশেষ অবস্থা জানান। স্বজনরা জানান, তখন ওই চিকিৎসক রোগীর কাছে না গিলে অনুষ্ঠানস্থলেই একটি ব্যথানাশক ওষুধ লিখে দেন। পরে ডায়রিয়ায় আক্রান্ত মানিক মিয়ার শারীরিক অবস্থার আরও অবনতি হয় এবং বেলা দেড়টার দিকে তিনি মারা যান। মানিকের চাচাতো ভাই নাজমুল আলম পলাশ অভিযোগ করেন, তার ভাইয়ের শারীরিক অবস্থা যখন খারাপ দিকে যাচ্ছিল, তখন তারা একজন ডাক্তার আনতে অনেক চেষ্টা করেছেন। কিন্তু কোনো ডাক্তার রোগীকে দেখতে যাননি। তারা অনুষ্ঠান নিয়েই ব্যস্ত ছিলেন। এ অবহেলাটুকু না হলে তার ভাই হয়তো বেঁচে যেতেন।

মানিকের চাচাতো চাচা,সৌদিআরব প্রবাসী এবি,এম ফারুক অভিযোগ করে বলেন, তদন্ত সাপেক্ষে আমি এর সুষ্ঠু বিচার চাই।কেন বার বার ফোন করেও ডাক্তার পাওয়া গেল না।তার মৃত্যুর জন্য একমাত্র ডাক্তাররা দায়ী।

হোসেনপুর উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডা. নাসিরুজ্জামান সেলিম বলেন, ওই সময় হাসপাতালে অটিজম দিবসের আলোচনা সভা চলছিল। তাই তখনই রোগীকে দেখতে যেতে পারেননি কোনো চিকিৎসক। তিনি দাবি করেন, কিন্তু ঘণ্টাখানিক পর চিকিৎসক গিয়ে যে ধরনের চিকিৎসা দেয়ার কথা সবই দিয়েছেন। হোসেনপুর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মো. আবুল হোসেন বলেন, হাসপাতালে বিশৃঙ্খলার খবর পেয়ে পুলিশ সেখানে গিয়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনে। লোকজনও কিছুক্ষণ পর লাশ নিয়ে বাড়ি ফিরে যায়।





©2018 Daily DeshKantho.com All rights reserved এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, অডিও, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি।
Design BY PopularHostBD